///Debapriya Bhattacharya on lack of clarity in FY2016 budget financing

Debapriya Bhattacharya on lack of clarity in FY2016 budget financing

2015-06-07T13:58:14+00:00 June 7th, 2015|CPD in the Media, Debapriya Bhattacharya|

Dr Debapriya Bhattacharya on lack of clarity in FY2016 budget financing, published in Jugantor on Friday, 5 June 2015.

অর্থায়নের খাত স্পষ্ট নয় – দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য্

যুগান্তর রিপোর্ট

২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে যে ব্যয়ের আকার ধরা হয়েছে, তা পূরণ করতে অর্থের জোগান কোথা থেকে হবে সে ব্যাপারে কোনো স্পষ্ট ধারণা দেয়া হয়নি। বাজেট ঘোষণার পর প্রতিক্রিয়ায় বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) সম্মানিত ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য্য এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, সামগ্রিক আয় সংস্থান করতে গিয়ে বৃহৎ ব্যয় সংকুলান করার জন্য বিভিন্ন ধরনের আয়ের উৎসে অবাস্তব ধরনের বৃদ্ধির প্রাক্কলন করা হয়েছে। ফলে এবারের বাজেটের যে স্ফীতি, তার বাস্তবসম্মত পরিসংখ্যান ভিত্তি বলে আমাদের কাছে যৌক্তিক মনে হচ্ছে না। কিছু কিছু জায়গায় ব্যাপক ধরনের স্ফীতি দেখানো হয়েছে, কিন্তু সেগুলো কী ধরনের পদক্ষেপের মাধ্যম অর্জিত হবে- এ সম্পর্কে কোনো স্পষ্ট ধারণা নেই। তার মতে, এ বাজেট বৈজ্ঞানিক পরিসংখ্যানের সঙ্গে মিলছে না। বিশাল এ বাজেটে ব্যয় করা হবে তিনটি ভাগে। যেখানে অনুন্নয়ন রাজস্ব ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭১ কোটি, উন্নয়ন ব্যয় ১ লাখ ২ হাজার ৫৫৯ কোটি এবং অন্যান্য ব্যয় ধরা হয়েছে ২৭ হাজার ৯৭০ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে পুরো ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকাই ব্যয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিশাল এ ব্যয় মেটাতে মোট রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ৮ হাজার ৪৪৩ কোটি টাকা। যেখানে এনবিআরের মাধ্যমে কর আদায় করা হবে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা। আর এনবিআরবহির্ভূত কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ হাজার ৮৭৪ কোটি টাকা। এছাড়া কর ব্যতীত আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২৬ হাজার ১৯৯ কোটি টাকা। এখানেও আয়ের সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নেই।

Comments

Leave A Comment